একটি এনআইডি দিয়ে কয়টি সিম রেজিস্ট্রেশন করা যাবে

 একজন বাংলাদেশি নাগরিক প্রাপ্ত বয়স্ক হিসেবে যাদের এনআইডি  (NID) কার্ড রয়েছে তারাই শুধু মাত্র বায়োমেট্রিক পদ্ধতিতে  সিম রেজিস্ট্রেশন করতে পারবে। আর যারা অপ্রাপ্ত বয়স্ক তাদের জন্ম নিবন্ধন দ্বারা সিম রেজিস্ট্রেশন করার সুযোগ নেই, যা পূর্বে ছিল।

একটি এনআইডি  (NID) কার্ড  দিয়ে সর্ব্বোচ্চ ১৫টি সিম কার্ড রেজিস্ট্রেশন করতে পারবে। এর বেশি সিম রেজিস্ট্রেশন করার কোন সুযোগ নেই। এ সব নির্দেশনা গুলো শুধু মাত্র প্রিপেইড সিম ব্যবহারকারীদের ক্ষেত্রে প্রযোজ্য হবে।



এর পূর্বে ২০ জুন ২০১৬ সালে সর্বোচ্চ ২০টি সিম গ্রাহকপ্রতি রাখা যাবে বলে বিটিআরসি সীমা বেঁধে দিয়ে ছিল। কিন্তু গত ২০১৭ সালের আগস্ট মাসে তা আরও কমিয়ে পাঁচটি করা হয়েছিল। এরপর ওই সিদ্ধান্ত পুনর্বিবেচনা করে গত ২০১৭ সালের ২৪ অক্টোবর গ্রাহকপ্রতি সর্বোচ্চ ১৫টি সিম বা রিম রাখার সুযোগ দেয় বিটিআরসি।

একজন গ্রাহকের জাতীয় পরিচয়পত্রের (এনআইডি) বিপরীতে কতটি সিম নিবন্ধিত রয়েছে, তা দুটি পদ্ধতিতে জানা যাবে। মোবাইল ফোন থেকে *১৬০০১# নম্বরে ডায়াল করলে ফিরতি বার্তায় গ্রাহকের তার এনআইডির শেষ চার সংখ্যা জানতে চাওয়া হবে। তা লিখে পাঠালে ফিরতি খুদে বার্তায় ওই গ্রাহকের নামে নিবন্ধিত সিমের সংখ্যা জানিয়ে দেওয়া হবে। এ ছাড়া এনআইডি নম্বরের শেষ চার সংখ্যা বা ডিজিট লিখে ১৬০০১ নম্বরে খুদে বার্তা পাঠিয়েও একটি এনআইডির বিপরীতে নিবন্ধিত সিম সংখ্যা জানা যাবে।

বিটিআরসির সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ী, দেশে বর্তমানে সক্রিয় সিমের সংখ্যা রয়েছে ১৪ কোটি ৩১ লাখ।